আগাম তরমুজ চাষে ব্যস্ত কৃষক

ফরাজী মো.ইমরান: পটুয়াখালীর রাঙ্গাবালীতে আমন ধান ঘরে তোলার পর আগাম তরমুজ চাষে ব্যস্ত সময় পার করছেন কৃষকরা। আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় অধিক লাভের আশায় তারা এ তরমুজ চাষ করছেন। তবে বীজের দাম বেশি থাকায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন কৃষকরা।

রাঙ্গাবালি কৃষি অফিস সূত্রে জানা যায়, এ উপজেলায় এবছর বারো হাজার হেক্টর জমিতে আগাম তরমুজ ক্ষেত তৈরি করেছেন কৃষকরা। আগামী মার্চ মাসেই তরমুজ বাজারে পাওয়া যাবে। সরেজমিনে ঘুরে দেখা গেছে, কেউ কেউ ট্রাক্টর দিয়ে চাষ দিচ্ছেন, কেউবা বেড তৈরী করছেন, কেউবা আবার মাটি কাটছেন, অনেকে আবার মাদা তৈরী করছেন, কেউবা আবার মাটির সাথে সার মিশাচ্ছেন, কোন কোন চাষী আবার বীজ বপন করছেন। সবমিলিয়ে তরমুজ ক্ষেতে ব্যস্ত সময় পার করছেন কৃষকরা।

কাউখালী গ্রামের কৃষক রফিকুল ইসলাম জানান, বাজারে যার তরমুজ যত আগে উঠবে, তার লাভ ততো বেশি হবে। তাই আগে-ভাগেই তরমুজ চাষ শুরু করেছি। তবে সারের দাম একটু বেশি। একই গ্রামের বাসিন্দা সাইফুল ইসলাম জানান, এবার এক একর জমিতে আগাম চাষ করার প্রস্তুতি নিয়েছি। প্রতি বিঘা জমিতে সার ঔষধ খরচ হবে ১৫ থেকে ২০ হাজার টাকা। বীজের দাম বেশি থাকায় খরচের পরিমানটা একটু বেশি হতে পারে। বীজ ও সারের দাম সহনীয় রাখার দাবি জানাচ্ছি।

রাঙ্গাবালী উপজেলা সহকারী কৃষি কর্মকর্তা মো. জুয়েল বলেন, অনেক কৃষকই আগাম তরমুজ চাষ করছেন। ভাল ফলনের লক্ষে এসব চাষীদের পরামর্শ দেয়া হচ্ছে। আবহাওয়া অনুকূলে থাকলে আগামী মার্চ মাসেই বাজারে তরমুজ পাওয়া যাবে ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *