কৃষিপ্রধান দেশগুলোকে নতুন গবেষণা নিয়ে ভাবতে হবে

ক্রমবর্ধমান জনগোষ্ঠীর খাদ্য নিরাপত্তা ঠিক রাখার চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় কৃষিপ্রধান দেশগুলোকে এখন থেকে নতুন করে গবেষণা নিয়ে ভাবতে হবে বলে মন্তব্য করেছেন কৃষিমন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাক।

মঙ্গলবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) সিজিআইএআর এডভাইজরি কমিটির (সিএসি) ৭ম সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ মন্তব্য করেন। রাজধানীর ফার্মগেটে বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা কাউন্সিল (বিএআরসি) মিলনায়তনে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়।

কৃষিমন্ত্রী বলেন, কৃষি গবেষণার বৈশ্বিক প্রতিষ্ঠানগুলোকে (সিজিআইএআর) প্রয়োজনীয় লাগসই প্রযুক্তি ও আইডিয়া উদ্ভাবনে গুরুত্ব দিতে হবে। এর মাধ্যমে দেশের টেকসই কৃষি উন্নয়নে সহযোগিতা আরও বাড়াতে হবে। এসময় তিনি আন্তর্জাতিক প্রতিষ্ঠান ওয়ার্ল্ডফিসকে বাংলাদেশের মাছের রোগ নিয়ন্ত্রণ ও দেশীয় মাছকে বিলুপ্তির হাত থেকে রক্ষায় গবেষণা ও সহযোগিতা বাড়ানোর আহ্বান জানান।

বাংলাদেশ কৃষি উন্নয়ন ও খাদ্য উৎপাদনে অভাবনীয় সাফল্য অর্জন করেছে উল্লেখ করে ড. আব্দুর রাজ্জাক বলেন, আন্তর্জাতিক ভুট্টা ও গম উন্নয়ন কেন্দ্র (সিমিট)কে সর্বাধুনিক প্রযুক্তি নিয়ে ভুট্টার ক্ষতিকর ফল আর্মি ওয়ার্ম পোকার আক্রমণ ও গমের ব্লাস্ট রোগ প্রতিরোধে এগিয়ে আসতে হবে। আশা করছি বাংলাদেশের কৃষি তথা অর্থনৈতিক উন্নয়নে ইরিসহ অন্যান্য গবেষণা প্রতিষ্ঠানগুলো আরও জোরালো কার্যক্রম নিয়ে এগিয়ে আসবে।

সভায় বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন কৃষি মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মো. মেসবাহুল ইসলাম। সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা কাউন্সিলের নির্বাহী চেয়ারম্যান ও সিএসির চেয়ারম্যান ড. শেখ মোহাম্মদ বখতিয়ার। এতে উপস্থিত ছিলেন কৃষি মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা, সিজিআইএআর প্রতিষ্ঠানের বাংলাদেশ প্রতিনিধি, সিএসির সদস্য এবং গবেষণা ও সম্প্রসারণ প্রতিষ্ঠানগুলোর প্রধানেরা।

কৃষি গবেষণা, উন্নয়ন ও নীতি প্রণয়নে কাজ করে এমন ১৫টি বৈশ্বিক প্রতিষ্ঠানের সম্মিলিত প্ল্যাটফর্ম হলো কনসাল্টেটিভ গ্রুপ ফর ইন্টারন্যাশনাল এগ্রিকালচার রিসার্চ (সিজিআইএআর)। ১৫টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ইরি, সিমিট, ওয়ার্ল্ডফিস, ইপরি, সিয়াট ও সিআইপিসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশে কৃষি সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন কাজ করছে।

বাংলাদেশের কৃষি উন্নয়নে এসব আন্তর্জাতিক প্রতিষ্ঠান বিভিন্ন প্রকল্প গ্রহণ ও বাস্তবায়ন করছে। বর্তমানে দেশে ৪৭টি প্রকল্প ও কর্মসূচি বাস্তবায়ন করছে এসব প্রতিষ্ঠান। এসব কর্মকাণ্ডে সরকারের দিকনির্দেশনা, অগ্রাধিকার ও নীতিমালার প্রতিফলন ও সমন্বয় করতে ২০১৩ সাল থেকে কাজ করছে ২২ সদস্যের সিজিআইএআর এডভাইজরি কমিটি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *