ছাগলের ওলান পাকা রোগের লক্ষণ ও প্রতিকার

ওলান পাকা বা ম্যাসটাইটিস
গরু, মহিষ বা ভেড়ার মতো ছাগলেরও ওলান পাকা রোগ হয়। বাচ্চা দেওয়ার কিছুদিন আগে বা পরে এ রোগ দেখা দেয়। কোন সময় ছোটখাট ক্ষতের সংক্রমণ থেকে এ রোগ হয়। ছাগলের বিভিন্ন ধরনের ব্যাকটেরিয়া সংক্রমণ এ রোগের কারণ।

লক্ষণসমূহ

  • গায়ে জ্বর থাকে, নাড়ির গতি দ্রুত হয়।
  • ওলান শক্ত হয় ও বাঁটসহ ফুলে ওঠে।
  • বাঁট দিয়ে পাতলা কখনও জমাট বাঁধা দুধ বেরিয়ে আসে এবং হঠাৎ মৃত্যু ঘটতে পারে।
  • কখনও দুধের সঙ্গে রক্তও বেরিয়ে আসে।

প্রতিরোধ
দুধ দোহনের সময় বা বাচ্চাকে দুধ খাওয়ানোর সময় যাতে কোন ক্ষত সৃষ্টি না হয় সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। ক্ষত সৃষ্টি হলেও সঙ্গে সঙ্গে ক্ষতের জায়গাটি পরিষ্কার করার ব্যবস্থা করতে হবে। বাচ্চা ছাগলকে অন্য ছাগলের দুধ খাওয়ানোর ব্যবস্থা করতে হবে।

প্রতিকার
প্রথমত, পরিচ্ছন্ন জায়গায় স্থানান্তর করতে হবে। সংক্রমিত ওলান থেকে দুধ দিনে ২-৩ বার বের করে আয়োডিন দ্রবণ দিয়ে ধুয়ে দিতে হবে। সম্ভব হলে ক্যানুলা দিয়ে আয়োডিন দ্রবণ ওলানে ঢোকাতে হবে। এছাড়া অ্যান্টিবায়োটিক দিয়ে চিকিৎসা করা যেতে পারে। এমপিসিলিন প্রতি ৮ ঘণ্টা পর পর ৩ মিলিগ্রাম বা কেজি ইনজেকশন প্রয়োগ করলে ভালো ফল পাওয়া যায়। সঙ্গে কিটোপ্রোফেন ১.৪ মিলিগ্রাম বা কেজি হিসেবে ৩৬-৪৮ ঘণ্টা পর পর শিরায় ইনজেকশন দিলে দ্রুত সেরে ওঠে।

লেখক: ড. মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম, প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা (প্রাণিসম্পদ), বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা কাউন্সিল

সংগ্রহীত

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *