শেরপুরে কৃষি বিভাগের কমিউনিটি বীজতলা

নিজস্ব প্রতিনিধি: শেরপুর জেলার ঝিনাইগাতী উপজেলায় রোপা আমন মৌসুমে ধানে চারা নিশ্চিত করতে ৪ একর জমিতে আপদকালীন কমিউনিটি বীজতলা করেছে উপজেলা কৃষি বিভাগ।

কৃষি অফিস সূত্রে জানা গেছে, চলতি রোপা আমন মৌসুমে ১৫ হাজার ৭শ ১০ হেক্টর জমিতে চাষের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। আর এ পরিমাণ জমির জন্যে কৃষক পর্যায়ে ১হাজার ২৫৫ হেক্টর জমিতে বীজতলা করা হয়। কিন্তু গত জুলাই মাসে টানা সাত দিনের অতিবৃষ্টি ও উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ী ঢলে সৃষ্ট বন্যায় ১১৩ হেক্টর জমির রোপা আমন ধানের বীজতলা সম্পূর্ণ ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। পরে কৃষি বিভাগের পরার্মশে কৃষকেরা দ্রুত সময়ের মধ্যে আবারও নতুন করে বীজতলা তৈরী করতে সক্ষম হয়েছেন। এর পরেও যাতে চারা সংকটের কারণে কোন কৃষকের জমি অনাবাদি না থাকে সে জন্যে প্রতাবনগর গ্রামে ৪ একর জমিতে আপদকালীন কমিউনিটি বীজতলা করেছে কৃষি বিভাগ।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মো. হুমায়ুন কবির বলেন, এবারের বন্যায় ১১৩ হেক্টর রোপা আমন ধানের বীজতলা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকেরা কৃষি বিভাগের পরার্মশে নতুন করে বীজতলা করেছেন। পাশাপাশি কৃষি অধিদপ্তরের পক্ষ থেকে ৪ একর জমি ভাড়া নিয়ে আপদকালীন কমিউনিটি বীজতলা তৈরি করা হয়েছে

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *