কৃষিই মানুষকে দুর্ভিক্ষ থেকে বাঁচাতে পারে: প্রধানমন্ত্রী

‘মহামারি করোনাভাইরাসের পর যে দুর্ভিক্ষ দেখা দেবে তার থেকে একমাত্র কৃষিই মানুষকে বাঁচাতে পারে’ এমন মন্তব্য করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, কথায় আছে পেটে গেলে পিঠে সয়।

এ সময় যারা পোল্ট্রি ও ডেইরি নিয়ে কাজ করছেন তাদের তা ফেলে না দিয়ে অল্পদামে সাধারণ মানুষের কাছে বিক্রি করার আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী।সোমবার রাজশাহী বিভাগের আট জেলার সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সের সূচনা বক্তব্যে তিনি এ আহ্বান জানান।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, সারাবিশ্বে দুর্ভিক্ষ দেখা দিতে পারে। আমাদের মাটি অত্যন্ত ঊর্বর। আমাদের খাদ্যের যেন সমস্যা না হয়। ধান ওঠার পরপরই যেন ফসল আমরা ফলাতে পারি, কেউ যেন এক টুকরাও জমিও ফেলে না রাখে।

‘তরি-তরকারি, ফলমূল যে যা পারেন উৎপাদন করবেন। করোনা দুর্ভিক্ষের পর যে মহামারি দেখা দেবে সেখান থেকে যেন আমরা আমাদের দেশকে বাঁচাতে পারি’, বলেন শেখ হাসিনা।

এ সময় তিনি বলেন, প্রত্যেকে উদ্যোক্তা হন। এখন তো সবাই ঘরে বসে আছেন। কাজেই যে যেটুকু পারেন একটু গাছ লাগানো, বাগান করা। আর রোদের আঁচে করোনাভাইরাস বেশিক্ষণ টিকতে পারে না। সুতরাং এটা স্বাস্থ্য সুরক্ষা সৃষ্টি করবে, কাজেই সেটা আপনারা করবেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, কৃষিই একমাত্র মানুষকে বাঁচাতে পারবে। কারণ খাদ্যটা সব থেকে গুরুত্বপূর্ণ। কথায় বলে পেটে গেলে পিঠে সয়। পোল্ট্রি, ডেইরি এ রকম যারা করছেন, যেহেতু দোকানপাট সবকিছু বন্ধ, আপনারা অল্প টাকায় সাধারণ মানুষের কাছে বিক্রি করে দেন। ফেলে না দিয়ে, মানুষের দিয়ে দিলেও তো কাজে লাগে। অনেকে দিচ্ছেন।