শেরপুরের নকলায় আলু চাষীদের দুদিন ব্যাপী চাষী প্রশিক্ষণ

মাঠ পর্যায়ে বীজ আলু উৎপাদন, সংগ্রহ, সংরক্ষণ, মান নিয়ন্ত্রণ ও বালাই ব্যবস্থাপনা নিয়ে বাংলাদেশ কৃষি উন্নয়ন কর্পোরেশন (বিএডিসি)’র চুক্তিবদ্ধ চাষীদের নিয়ে দুদিন ব্যাপী চাষী প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। সরকারের নির্দেশনা মোতাবেক সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে, স্বাস্থ্যবিধ মেনে শেরপুরের নকলায় বিএডিসি’র আলু বীজ হিমাগার মিলনায়তনে ৩০জন চুক্তিবদ্ধ চাষীদের নিয়ে এ প্রশিক্ষণ কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়।

বিএডিসি আলু বীজ হিমাগারের উপপরিচালক কৃষিবিদ মো. রফিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন, মান সম্পন্ন বীজ আলু উৎপাদন ও সংরক্ষণ এবং কৃষক পর্যায়ে বিতরণ জোরদারকরণ প্রকল্প পরিচালক কৃষিবিদ মো. আবীর হোসেন এবং বিশেষ অতিথি ছিলেন, বিএডিসি ঢাকার উপপরিচালক (মান নিয়ন্ত্রণ) কৃষিবিদ এএসএম খায়রুল হাসান শামীম।


অভিজ্ঞ প্রশিক্ষক হিসেবে কৃষকদের প্রশিক্ষণ প্রদান করেন, শেরপুর জেলা বীজ প্রত্যয়ন অফিসার কৃষিবিদ আবু সাঈদ মো. আখতারুজ্জামান, বিএডিসি জামালপুরের উপ-পরিচালক কৃষিবিদ মো. রিয়াজুল ইসলাম উপপরিচালক, উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবিদ পরেশ চন্দ্র দাস ও বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা (কন্দাল ফসল) কৃষিবিদ মিজানুর রহমান প্রমুখ।

বিএডিসি আলু বীজ হিমাগারের উপ-পরিচালক কৃষিবিদ মো. রফিকুল ইসলাম জানান, সারাদেশের ৩০ জোনে একযোগে ২দিন ব্যাপী এ প্রশিক্ষণ কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়। এরই অংশ হিসেবে শেরপুরের নকলায় ১৯টি ব্লকের আওতায় ৩০ জন কৃষককে ২দিন ব্যাপী এ প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়। প্রশিক্ষণার্থীদের মাঝে সরকার কর্তৃক প্রাপ্য প্রশিক্ষণ সরঞ্জামাদী ও প্রশিক্ষণ ভাতা প্রদান করা হয়।

এ প্রশিক্ষণে চাষীদের মাঝে উপ-পরিচালক কৃষিবিদ মো. রফিকুল ইসলাম ও উপসহকারী পরিচালক মো. মিজানুর রহমানের সংকলণে ও নিজস্ব অর্থায়নে মুদ্রিত বিশেষ ম্যানুয়েল প্রশিক্ষণার্থী আলু চাষীদের হাতে তুলে দেওয়া হয়। এ প্রশিক্ষণ ম্যানুয়েলটি অতিরিক্ত মহাব্যবস্থাপক (সিডিপি ক্রপস) বিএডিসি ঢাকা, উক্ত প্রকল্প পরিচালক, যুগ্ম পরিচালক (মাননিয়ন্ত্রণ), উপপরিচালক (মাননিয়ন্ত্রণ) বিএডিসি ঢাকা মহোদয়ের বিশেষ অনুপ্রেরনায় এবং কৃষি বিষয়ক বিভিন্ন বই, পত্রিকা, খ্যাতিমান বিভিন্ন কৃষিবিদ ও গবেষকগণের লেখাসহ বিভিন্ন তথ্যের ভিত্তিতে সংকলণ করা হয়েছে।